ব্যাকগ্রাউন্ড

ফেইসবুকে!

নিয়মের অনিয়ম

অনেক বছর হয়েছে, 
এখন আর আগের মতো দেখা হয় না...  

তোমার কি ওসবের কিছু মনে আছে? 

আমাদের সেইসব থমকে থাকা 
অনন্ত দিন গুলো,  তখন - 
পরস্পরকে, না দেখা অবধি 
আমাদের দিন  শুরুই হতো না।

তুমি না - নিয়ম করেছিলে... 

আমাদের মধ্যে যেই প্রথমে পৌঁছাক না কেনো, 
ক্যাম্পাসের অন্য কারোর সাথে সে আগে দেখা করবে না এবং কথা বলার ক্ষেত্রে দেয়া হয়েছিল ছিল কঠোর নিষেধাজ্ঞা। 

সুতরাং, এটা করা ছিল নাজায়েজ। 

যে করেই হোক ~ আগে আমাদের দেখা হবে তারপর, বাদবাকি সবাই। 

যেকোনো নিয়ম বরাবরের মতো 
আমার জন্য কঠিন ব্যাপার।  
তাছাড়া, তোমার নিয়মে কখনোই 
অপেক্ষার ক্ষেত্রে  উপহারের ব্যবস্থা ছিল না।  

উপহার সৌজন্যে মাত্র - এর সৌন্দর্য অনুপ্রেরণায়। 

তবে, তোমার উপহার দেয়ার ইচ্ছার অনিয়মের নিয়ম আমি আজও বুঝিনি। 

বোঝার কথাও না। 

আসলে বুঝতে চাইনি, সম্ভবত আলস্য কে এজন্য অপরাধী বলবো। 

ছোট গলি ছেড়ে,  
দুচার টা চৌরাস্তা হেঁটে পেরিয়ে 
তবে ক্যাম্পাসে পৌঁছাতাম,  
তারপর বিশ্রামে অপেক্ষা। 

প্রায়ই, ক্যাম্পাসের পথে যেতে যেতে 
আমি অবাক হয়ে ভাবতাম...  

আমরা এতো সহজে, অসংকোচে, 
অপরিপক্ব অসংযত অপরিকল্পিত আনন্দে দ্বিধাহীন আমেজে বিলীন হয়ে - কী সব  আবোল-তাবোল অদ্ভুত খামখেয়ালি আলাপের  আড়ালে - কখনো কখনো কথা বলে - কখনোবা চুপ করে নিশ্চুপ শব্দে বেঁকে বসে থেকে - অপরিচিত আবেগের মাঝে স্বপ্ন দেখার ভিড়ে -
 কি কোরে যেন - এতো এতো দীর্ঘ রজনি - কাটাতাম। 

মাঝে শুধু . . .  

এক তরঙ্গের দুপাশে দুজন মুঠোফোন কানে চেপে রেখে ভোরের প্রথম আলো দেখেই তবে রাত্রিকে ছুটি দিতাম। 

যেন রাত অপেক্ষারত আমাদের অনুমতির... 

এখন, অবাক করা সেই ভাবনাটাকে কেমন যেন পবিত্র ঘোরের মোহের মায়ার মতো লাগে - অপূর্ব বিস্ময়কর বয়সের সময়। 

অন্তত,আমার সেটাই মনে হয়।    

আমার বেশভূষা কখনোই তোমার পছন্দ ছিল না। তোমার পছন্দ নিয়মতান্ত্রিকতার আবেশের পরিপাটি বিন্যাস। 

সাধারণ, সম্ভবত, আধুনিক চলের সাথে বেমানান। 

স্বভাবতই সাধারণ নিয়মের গুরুত্ব বুঝে না।  

অনিয়ম তাই তোমায় আমায় বুঝতে দেয়নি। 

অনিয়ম এবং নিয়ম পরস্পরের বন্ধু বলে কথা। 

তুমি নিয়মিত সম্মিলিত নিয়মের আয়োজনে বেড়ে ওঠা সবার মাঝের একজন।  

আর আমি . . .  

আমার এই অনিয়মের স্বতঃস্ফূর্ত আমেজ প্রথম প্রথম আকর্ষণীয় মনে হলেও সেটা সাময়িক কিন্তু স্মৃতিতে চিরস্থায়ী। 

নিয়ম কোরে, ভুলে থাকার চর্চায় নিয়মিত হলে উপেক্ষা অসম্ভব কিছু না। 

তাই, তোমার সাথের অনিয়মিত চুক্তি নিয়মিত হয়নি। 

তাইতো , 

আজ অনেক বছর হয়েছে, 
এখন আর আগের মতো দেখা হয় না. . .  

নিয়মের অনিয়ম / তৌকির আজাদ 

১৭/০৫/২৪, ১২:৩২ মধ্যাহ্ন 

 

ছবি
সেকশনঃ কবিতা
লিখেছেনঃ তৌকির আজাদ তারিখঃ 29/05/2024
সর্বমোট 106 বার পঠিত
ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুণ

সার্চ

সর্বোচ্চ মন্তব্যকৃত

এই তালিকায় একজন লেখকের সর্বোচ্চ ২ টি ও গত ৩ মাসের লেখা দেখানো হয়েছে। সব সময়ের সেরাগুলো দেখার জন্য এখানে ক্লিক করুন