ব্যাকগ্রাউন্ড

ফেইসবুকে!

পলিনেশন

আমার একটা জামা ছিল,সারাদিন দৌড় -ঝাপ পেড়ে এ গ্রাম ও গ্রাম ঘুরে যে সুখ -দুঃখগুলো জমা হতো, সেইগুলা সন্তর্পণে  জামার বুকপকেটে নিবিড় ভাবে রেখে দিতাম। যাতে বেহায়া সুখ-দুঃখগুলো হারিয়ে না যায়।

কৈশোর -যৌবনের চাহিদাগুলো খুবই যত্নে রেখে দিতাম বুকপকেটে। খোলা আকাশের দিগন্ত মাঠ, পুবের হাওয়া আর দক্ষিণের চল্লিশা গর্জন, সবই থাকতো আমার জামার সাথে ল্যাপ্টে।

বড় হতে হতে বেহায়া সুখ-দুঃখগুলো আর জায়গা হয়নি, তাই তারা অক্টোপাসের মত কিলবিল করে বেরিয়ে পড়েছে। ছড়িয়ে পড়েছে আমার সমস্ত দেহ জুড়ে মাদকের মতো।

চাহিদাগুলো তাদের নিজের ইচ্ছে মতো পুরাতন শখগুলো পূরণ করতে ব্যস্ত। যার অধিকাংশ তারা পায়না  পূরণ করতে গানিতিক প্রক্রিয়া । তখন তারা ফ্যাসি করে, আর্তনাদ করে, ক্লান্ত হয়ে হাল ছেড়ে দেয়। তখন আমি হাফ ছেড়ে বাঁচি।

এই শোকে,  আমি আমার অবশিষ্ট ইচ্ছাগুলো অর্পিত করি কোন এক দেবালয়ে। বেশ ভালোই ছিলো কিছু সময়।

দিনদিন যতো বড় হয়ে ওঠে, ওরা আরো দূরে সরে যায় , আমার কাছ থেকে। ওরা এখন থাকে গহীন অরণ্যে কোন এক সম্রাজ্ঞীর নিয়ন্ত্রণে।
আমার ইচ্ছেগুলো এখন আর আমার কাছে থাকে না। ওরা এখন বড় হয়েছে। তাই আমার ছেঁড়া বুকপকেটে,  ওদের আর জায়গা হয় না!

ছবি
সেকশনঃ সাহিত্য
লিখেছেনঃ এম.দুলাল তারিখঃ 11/06/2024
সর্বমোট 105 বার পঠিত
ফেসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুণ

সার্চ

সর্বোচ্চ মন্তব্যকৃত

এই তালিকায় একজন লেখকের সর্বোচ্চ ২ টি ও গত ৩ মাসের লেখা দেখানো হয়েছে। সব সময়ের সেরাগুলো দেখার জন্য এখানে ক্লিক করুন